তখন কাউকে পাশে না পেয়ে আরও বেশি খারাপ লাগে

📮 মনচিঠি টেক্সট-৩৪

I need help expressing myself. Sometimes I feel suffocated for not being able to share my thoughts. It’s not that I’m an introvert. I’d say I’m an extrovert. I love to talk with people, make people laugh and stay jolly. But I can’t share my feelings when I need to. It has taken a lot of courage to send this to you.

(1) I’m experiencing a lot of stress lately. Academic, career life, and relationship – these are the primary sources of my anxiety. I need help tackling that.
(2) I’m currently working on a part-time basis at an organization. The work pressure there is getting bigger day by day. It’s not that I’m not hardworking or don’t want to work. I can’t handle the stress.
(3) The academic pressure, too, is troubling me much. I’m very much ambitious with my academics. I want to do my Master’s abroad. I feel the constant pressure to bring good grades.
(4) I’ve had a breakup recently, and that’s bothering me too much. I miss her but don’t know if I should get back to her or not. I’ve put so much effort into this relationship. And I fear all my efforts going in vain.
(5) I also feel very lonely sometimes. অনেক খারাপ লাগে তখন। কান্না করতে ইচ্ছা করে। কিন্তু তখন কাউকে পাশে না পেয়ে আরও বেশি খারাপ লাগে।

Thank you for taking the time to help me out. I really appreciate it.

💌  মনচিঠি টেক্সট-৩৪ এর উত্তর

‘মনচিঠি’তে আপনার সমস্যা তুলে ধরেছেন, আপনাকে ধন্যবাদ।

১.  আপনার লেখা পড়ে জানতে পারলাম, আপনি লাইফের নানান ইস্যুকে কেন্দ্র করে মানসিকভাবে স্ট্রেসে আছেন এবং সেই স্ট্রেস থেকে বের হতে পারছেন না। আপনি এই স্ট্রেস থেকে বের হতে চান। আপনার আন্তরিক ইচ্ছের কথা জানতে পেরে আমিও আশাবাদী আপনি বের হতে পারবেন।

২.  আপনি আরো জানিয়েছে যে, বর্তমানে আপনি পার্ট টাইম জব করছেন। এবং যেহেতু আপনি আপনার ব্যক্তিগত নানান বিষয়গুলো রিল্যাক্স ফিল করছেন না সুতরাং কর্মক্ষেত্রের কাজগুলোতেও ভীষণ প্রেসার ফিল করছেন। আসলে আমরা তো শরীর ও মন এই দুই একসাথে কর্মরত মানুষ। মনের কাজ সম্পূর্ণ মস্তিষ্কে সুতরাং নানান রকম মানসিক চাপ, অস্থিরতা এবং সমস্যা আমাদের দৈনন্দিন সকল কাজেই প্রভাব ফেলে।

আপনাকে বিশেষ ধন্যবাদ জানাচ্ছি আবারও কারণ আপনি আপনার মানসিক স্বাস্থ্যের ব্যাপারে দারুণ সচেতন। আপনি বুঝতে পারছেন আপনি সমস্যা ফেস করছেন এবং আপনি এজন্য সহযোগিতা চান।

আমি যদি কিছু বিষয় বলি,
সর্বপ্রথম আপনি খুঁজে বের করুন কবে থেকে মানসিকভাবে অসুস্থতা অনুভব করছেন। সময়কাল কত দিন বা মাস বা বছর। কারণ আপনি যতদিন ধরে এই সমস্যাটি বয়ে বেড়াবেন সমস্যা ততই বিশাল আকৃতি ধারণ করবে।

প্রথম ধাপঃ
যেকোন ধরনের কষ্টকর অনুভূতি হবে, আপনি কি একা একা রিল্যাক্স হতে পারছেন? রিল্যাক্স হতে আপনার কত সময় লাগছে। এই সময়টি অতিরিক্ত লাগার ফলে আপনার কোন ক্ষতি হচ্ছে কিনা।

দ্বিতীয় ধাপঃ
গভীরভাবে কয়েকটি বিষয়, আগের মতো পড়াশুনা এবং স্বাভাবিক কাজ কর্ম করতে পারছেন? আপনি কি ঠিকভাবে ঘুমাতে পারছেন?

তৃতীয় ধাপঃ
আপনার ভেতর যে ভয়, উদ্বেগ বা অস্থিরতার মাত্রা কিছুটা হলেও কমে আসে তখন আপনার মাথায় নানান রকম নেতিবাচক চিন্তা ভীড় করে কিনা।

কেমন বোধ করছেন খেয়াল করুন। এই মুহুর্তে আপনার চাহিদা কি খেয়াল করুন। এবার ভাবুন নিজেকে ও পরিবার এই সম্পর্কটিকে সুরক্ষিত রাখতে আপনি কি কি পদক্ষেপ নিতে পারেন। নিজের ও পরিবারের সদস্যদের ব্যাপারে যত্নশীল হওয়ার কি কি পদক্ষেপ আছে।

সবশেষে বলতে চাই, অবশ্যই একজন প্রফেশনাল মনোবিজ্ঞানীর সাহায্য নিন। কারণ সমস্যাগুলো একদিনে তৈরি হয়নি সমাধানও একদিনে বা একটি চিঠিতে পাওয়া কঠিন। আপনার সামগ্রিক দিক বিবেচনা করে বলছি যতদ্রুত সম্ভব একজন কাউন্সিলরের সাথে যোগাযোগ করুন এবং নিয়মিত সেশন নিন। মানসিকভাবে সুস্থ থাকার পথ আপনার জন্য উন্মুক্ত হোক। ভালো থাকবেন।

ধন্যবাদ আপনাকে।

দুঃখিত রিপ্লে করতে দেরি হওয়ায়।

ফাতেমা শাহরিন
২০-০২-১৮, পিয়ার কাউন্সেলর, মনচিঠি by DUOS
zummi093824@gmail.com

📞 ভয়েস কলে কাউন্সেলিং/মানসিক স্বাস্থ্য পরামর্শ পেতে এখানে ক্লিক করে ফরমটি পূরণ করতে হবে।

👩‍⚕️ এ ছাড়াও ইমেইল আইডি, ফেসবুক পেজ এবং সেলফোন নম্বরে যোগাযোগ করে মানসিক স্বাস্থ্য সহায়তা পাওয়া যাবেঃ

👍 ফেসবুক পেজ (ক্লিক করুন)
💬 ফেসবুক মেসেঞ্জার (ক্লিক করুন)
📞 সেলফোন নম্বর : 01841 21 52 71
📧 ইমেইল আইডি : monchithi.duos@gmail.com

🌐 বিস্তারিতঃ www.duos.org.bd/monchithi

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *